বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউআইটিএস (ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্সেস) উপাচার্যকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান ও ৬০ কোটি টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ দায়ের করা মামলার আসামি শওকত হাসান মিয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে ওই মামলায় জামিনের আবেদন জানালে আদালত তার জামিন আবেদন নাকচ করে তাকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে চট্টগ্রামের পিএইচপি ফ্যামিলির অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইউআইটিএসের পক্ষের আইনজীবী আবদুল মান্নান ভুঁইয়া যুগান্তরকে বলেন, ইউএইটিএস ভিসির প্রাণনাশের হুমকি ও চাঁদা দাবির ঘটনায় গত ২ জানুয়ারি রাজধানীর ভাটারা থানায় বঙ্গলীগের প্রেসিডেন্ট দাবিদার শওকতকে প্রধান আসামি করে একটি মামলা করেন ইউআইটিএসের উপাচার্যের ব্যক্তিগত সহকারী মো. মোস্তফা কামাল।

এ মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন নিয়েই পলাতক হয়ে যান এই আসামি। উচ্চ আদালত চাঁদাবাজির ওই মামলায় তাকে ছয় সপ্তাহের জামিন দেন। কিন্তু মেয়াদ শেষ হলেও তিনি এতদিন জামিন না নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন। সর্বশেষ সোমবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন শওকত হাসান মিয়া। আদালত শুনানি শেষে তার জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।