17 C
Dhaka
Monday, January 18, 2021

সৈয়দপুরে মাও.সৈয়দ আব্দুল আউয়াল রহ. এর স্বরণে ছাত্র জমিয়তের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

- Advertisement -
- Advertisement -

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ জগন্নাথপুর উপজেলাধীন সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের উদ্যোগে ঐতিহ্যবাহী সৈয়দপুরের প্রবীণ আলেমেদ্বীন,জামেয়া সৈয়দপুর এর সাবেক নাজিমে তালিমাত,উস্তাজুল উলামা,মাওলানা সৈয়দ আব্দুল আউয়াল (বড়হুজুর) রহ.স্মরণে আজ ১২ জুন শুক্রবার বাদ জুম’আ
সৈয়দপুর বাজারস্থ জমিয়ত কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

শাখার সভাপতি হাফিজ সৈয়দ হাবীব সালেহ এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিতব্য দোয়া মাহফিলে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন ইউরোপ জমিয়তের যুগ্ম মহাসচিব,
সৈয়দপুর ইমদাদুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা হাফিজ সৈয়দ জুনায়েদ আহমদ।
ইউনিয়ন জমিয়তের সহ সভাপতি মুফতি সৈয়দ শামীম আহমদ সাহেব,ইউনিয়ন জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আমিনুল ইসলাম রাজু,জগন্নাথপুর উপজেলা যুব জমিয়তের সভাপতি,সাবেক ছাত্রনেতা মাওলানা সৈয়দ সুহাইল আহমদ।

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেনঃ
জগন্নাথপুর উপজেলা জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আব্দুল আউয়াল (বড়হুজুর) রহ. এর সাহেবজাদা মাওলানা সৈয়দ রশিদ আহমদ,ইউনিয়ন জমিয়তের সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আখতার হোসাইন,জমিয়ত নেতা মাওলানা মারজান ফিদাউর,ইউনিয়ন যুব জমিয়ত সভাপতি মাওলানা শেখ বিলাল আহমদ।মাওলানা নুর আলী,ছাত্রনেতা সৈয়দ গুলজার আহমদ,
হাফিজ সৈয়দ তামিম আহমদ,সৈয়দ আশফাক আহমদ,সৈয়দ সুহেল আহমদ,সৈয়দ খুবাইব আহমদ,সৈয়দ ইয়াকুব আহমদ,মৌলভী হাসনু,হাফিজ আব্দুর রাহমান,মোঃইয়াকুব আহমদ উজ্জ্বল,রাফি বিন রুকন উদ্দিন,হাফিজ মারগুব আহমদ হাফিজ আছজদ আহমদ,হাফিজ আরিফ আহমদ,হাফিজ জুবেদ আহমদ,হাফিজ ইশফাকুর রাহমান,
হাফিজ আকরাম,নাজিম আহমদ,প্রমুখ।

পরিশেষে হযরতের দারাজাত বুলন্দি কামনায়
দুয়া করেনঃ ইউরোপ জমিয়তের যুগ্ম মহাসচিব হাফিজ মাওলানা সৈয়দ জুনায়েদ আহমদ।

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -