32 C
Dhaka
Thursday, March 4, 2021

প্রবাসীদের বলির পাঠা বানানো বন্ধ করুন

- Advertisement -
- Advertisement -

সরকার এবং দেশে থাকা নাগরিক ও সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীদের কর্মকাণ্ড দেখে মনে হচ্ছে বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার একমাত্র কারণ প্রবাসীরা৷ এমন একটা ভাব যেন প্রবাসীদের মাধ্যমেই দেশে করোনার আমদানি হয়েছে!

তাইতো দেখতে পাচ্ছি প্রশাসনের সহায়তায় প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙিয়ে দেয়া হচ্ছে৷ বিভিন্ন এলাকায় স্থানীয়দের দ্বারা প্রবাসীদের নানা হয়রানির শিকার হওয়ার খবরও পাওয়া যাচ্ছে৷

প্রবাসীদের বাড়ি থেকে বাইরে বের না হতে নির্দেশ দিয়ে বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা৷ 

ছাড়া আজ মঙ্গলবার পুলিশ সদরদপ্তর থেকে নির্দেশ জারি করে ১ মার্চের পর দেশে যাওয়া প্রবাসীদের মধ্যে যারা পাসপোর্টের ঠিকানার বাইরে অন্য ঠিকানায় অবস্থান করছেন, তাঁদের শিগগিরই নিকটস্থ থানায় যোগাযোগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷ অন্যথায় তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে৷

কোনো সন্দেহ নেই যে, এটি একটি দারুণ উদ্যোগ! কিন্তু খেয়াল করে দেখুন, নির্দেশনাটি জারি হয়েছে শুধুমাত্র প্রবাসীদের জন্য৷ এর মানে কি এই যে, ১ মার্চের পর শুধু প্রবাসীরাই দেশে গিয়েছেন? ব্যবসা বা চাকরি সূত্রে কিংবা ঘুরতে বিদেশ যাওয়াদের কেউ এই সময়ে দেশে ফেরেননি? তাহলে পুলিশের জারি করা এই নির্দেশ কি তাঁদের জন্য প্রযোজ্য হবে না?

পুলিশের এই নির্দেশনা নিয়ে আরও কথা আছে৷ এতে পাসপোর্টের ঠিকানার বাইরে অন্য ঠিকানায় যারা অবস্থান করছেন, তাঁদের কথা বলা হয়েছে৷ কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, অনেকেই স্থায়ী ঠিকানায় বাস করেন না৷ আর বর্তমান ঠিকানাও নানা কারণে পরিবর্তন হতে পারে৷ ফলে করোনার বিস্তার শুরুর পর থেকেই যদি উদ্য়োগ নিয়ে বিমানবন্দরেই বিদেশফেরতরা দেশের কোথায় থাকবেন, তা জেনে নেয়া যেতো তাহলে বুদ্ধিমানের কাজ হতো৷ আসলে করোনা মোকাবিলা করতে সরকার এখন যতখানি তৎপরতা দেখাচ্ছে, আরও আগে থেকে তা শুরু করলে হয়ত তেমনটাই করা হতো৷ কিন্তু তা না করে সরকারের লোকজন তখন শুধু নাগরিকদের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে গেছেন৷ বলেছেন, করোনা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া আছে৷

ফলে এখন যেহেতু ধীরে ধীরে সরকারের পর্যাপ্ত উদ্যোগ না নেয়ার খবর বেরিয়ে আসছে তাই তড়িঘড়ি করে পুলিশকে দিয়ে প্রবাসীদের জন্য এমন একটি কড়া নির্দেশনা জারি করা হয়েছে৷

অথচ সরকার যদি প্রবাসীদের সম্মানের বিষয়টি মাথায় রাখতো তাহলে শুরুতেই সরাসরি থানায় যোগাযোগের নির্দেশ না দিয়ে প্রথমে কয়েকটি টেলিফোন নম্বর দিয়ে একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত প্রবাসীদের সেসব নম্বরে যোগাযোগের অনুরোধ করতে পারতো৷ যারা সেই অনুরোধ মানতেন না তাদের জন্য আজকের মতো এমন কড়া নির্দেশনা জারি করা যেত৷

সন্দেহ নেই, প্রবাসীদের প্রতি দেশের মানুষের এমন বিমাতাসুলভ আচরণের জন্য প্রবাসীরাও অনেকটা দায়ী৷ কারণ দেশে ফিরে তাঁদের কোয়ারান্টিনে থাকার কথা থাকলেও অনেকেই তা মানছেন না৷

অবশ্য সরকার, রাজনীতিবিদ ও দেশের মানুষের কাছে প্রবাসীরা যে সম্মানী ব্যক্তি নন, তাঁরা যে শুধু দেশের উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় ‘টাকার মেশিন’ তার প্রমাণ আগেও পাওয়া গেছে৷ বিমানে করে দেশে ফেরা অনেক প্রবাসী বিমানবন্দরেই এমন মনোভাবের প্রমাণ পেয়ে থাকেন৷

এই অবস্থার পরিবর্তন জরুরি৷

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -