17 C
Dhaka
Thursday, January 21, 2021

কানাইঘাটে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের ডাক

- Advertisement -
- Advertisement -

মীম সালমান।

“কানাইঘাটের দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে
সন্ত্রাসবিরোধী আন্দোলন বেগবানে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য গঠিত হতে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ, এখন শুধু ঘোষণার অপেক্ষা।
সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের মূল চালিকা শক্তি হিসেবে আন্দোলনের মাঠে থাকবে বিভিন্ন স্কুল কলেজ ও সরকারি বেসরকারি মাদ্রাসার ছাত্ররা। তাদের বিভিন্ন রাজনৈতিক ছাত্রসংগঠন।
এর বাইরেও যারা আসতে আগ্রহী তাদের জন্য পথ খোলা থাকবে। এরপর মূল দলগুলোর চলমান সন্ত্রাসবিরোধী আন্দোলন মাঠ পর্যায় পর্যন্ত কার্যকর করতে এই ছাত্র ঐক্য সর্ব শক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে।
এ বিষয়ে আমাদের বক্তব্য পরিষ্কার ‘সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের বিষয়ে ইতোমধ্যে সারা ইউনিয়নে আমাদের অধিকাংশ ছাত্র জনতা প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সব ঠিকঠাক করে স্বল্পতম সময়ের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেওয়া হবে।’

উল্লেখ যে, কানাইঘাটের ১নং ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলে একের পর এক ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে স্তব্ধ করে তুলেছে! মানুষের জানমালের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে হিমসিম খেতে হচ্ছে। প্রশাসনের নিরব দুর্বলতা ও বিচারকদের বিচারিকক্ষেত্রে ব্যর্থতার কারণে এসকল এলাকার মানুষ আজ একটি জীবন্ত কারাগারে পরিনত। তাদের কান্নায় আজ আকাশ পাতাল ভারি হয়ে উঠেছে। এসব এলাকার এমন পরিস্থিতিতে মানুষের বিচারিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে সময়ের দাবি হিসেবে সন্ত্রাসবিরুধি গণআন্দোলনের লক্ষে গঠিত হচ্ছে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য সংগ্রাম পরিষদ।
তাই সর্বজনীন মহলে আমাদের আহবান অত্র এলাকার ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে অক্ষুণ্ণ রাখতে আপনি ও আসুন সন্ত্রাসবিরুধি সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের ডাকে।

মীম সালমান
কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ।

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -