মীম সালমান।

করোনা মহামারিতে বিশ্বনাথ তথা সিলেটের গরীব ও অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন লন্ডন টাওয়ার হ্যামলেটের প্রাক্তন স্পিকার, বিশ্বনাথ ওয়ান পাউন্ড হাসপাতালের সেক্রেটারি জেনারেল, বিশ্বনাথের কৃতিসন্তান আলহাজ্ব জনাব মোহাম্মদ আয়াছ মিয়া।

স্পিকার আয়াছ মিয়া একজন জনদরদ্বী মানুষ। যার গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না, তিনি গরিবের বন্ধু। তিনি আপাদমস্তক একজন ভালো মানুষ । তিনি অসাম্প্রদায়িক ও জনদরদী নেতা।” তিনি অসম সাহসী। জনকল্যাণে কাজ করাই তার নেশা । সজ্জন রাজনীতিক ও জনদরদী এই মানুষটি সমাজ উন্নয়নে নিজেকে জরিয়েছেন বুঝ হওয়ার পর থেকেই। বিশেষত বিশ্বনাথের মাঠিতে তিনি একজন মানবদরদ্বী ব্যাক্তি হিসেবে নিজেকে পরিনত করেছেন।
বর্তমান তরুন প্রজন্মের কাছে তিনি এক মহীরুহে পরিণত হয়েছেন ।

নির্লোভ, নিরহঙ্কার মানুষ জনাব আয়াছ মিয়া সাহেব বর্তমান এই মহামারীতে লন্ডন থেকে দেশের মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। ইতিমধ্যে বিশ্বনাথের ২/৩ শতাদিক মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছেন। পাশাপাশি অনেক মানুষকে আর্তিক অনুদান ও দিয়েছেন। বিভিন্ন মাদরাসা শিক্ষকদের মাঝে অনেক অনুদান ও দিয়েছেন। বিভিন্ন দোকান / বাসাবাড়ির ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন। চলিত রমজান মাসেও খাদ্য সামগ্রী বিতরনের প্লান নিচ্ছেন। তার মত এমন দেশপ্রেমিক পেয়ে বিশ্বনাথবাসী আজ গর্বিত। আনন্দে বিমোহিত। জনাব আয়াছ মিয়া সাহেব লন্ডন থেকে দেশবাসীর কাছে নিজের পরিবার পরিজন সহ সকল মুসলমানের জন্য দেয়া চেয়েছেন।

দোয়া করি, আল্লাহ যেন তাকে এবং তাহার পরিবারকে সকল ধরনের মহামারি থেকে হেফাজতে রাখুন