31 C
Dhaka
Thursday, April 15, 2021

করোনায় আরেক দুদক কর্মকর্তার মৃত্যু: চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগ

- Advertisement -
- Advertisement -

চলমান২৪ ডেস্ক:: করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আরেক কর্মকর্তা মৃত্যুবরণ করলেন। (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। তার নাম মো. খলিলুর রহমান (৫৭)। তিনি দুদকের বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত সেল-২ এর প্রধান সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

শনিবার দুপুর ১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি সামনে আসার পর তিনি যথাযথ চিকিৎসা পাননি বলে অভিযোগ উঠেছে।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন দুদকের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, আমরা পরপর দুজন দক্ষ কর্মকর্তাকে হারালাম। আমি তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি। শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি রইল সমবেনা।

এর আগে গত ৬ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হয়ে দুদকের পরিচালক (প্রশাসন) জালাল সাইফুর রহমান মারা যান। তার স্ত্রী সন্তানও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে তারা এখন সুস্থ।

খলিলুর রহমানের অসুস্থতার বিষয়ে দুদকের একজন দায়িত্বশীল উপ-পরিচালক যুগান্তরকে বলেন, তিনি ১০-১২ দিন আগে অসুস্থ হন। করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তিনি শিশু হাসপাতালে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করেন। কয়েকদিন পর রিপোর্ট আসে পজিটিভ। এরপর তিনি চিকিৎসার জন্য কয়েকটি হাসপাতালে চেষ্টা করেন। কিন্তু কোথাও তিনি চিকিৎসা পাননি। শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে পরশু তিনি ইবনে সিনা হাসপাতাল কল্যাণপুর শাখায় তাকে নিয়ে গেলে আইসিও’র ব্যবস্থা হয়নি। সিটও পাওয়া যায়নি। তাকে ওই হাসপাতালের আউটডোরে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়। পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ঢাকা মেডিকেলেও তাকে আইসিও সাপোর্ট দেয়া সম্ভব হয়নি বলে জানান ওই কর্মকর্তা। তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষ আরেকটু আন্তরিক হলে হয়তো তিনি আইসিও সাপোর্ট পেতেন।

তিন মাস আগে তার হার্টে রিং পড়ানো হয়। এরপর তিনি সুস্থই ছিলেন। তিনি সরকারি ছুটির ভেতর বাসা থেকে বের হননি। তারপরও কীভাবে আক্রান্ত হলেন মনে করতে পারছেন তা তার পরিবারের সদস্যরা।

তার এক বোন পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি জানান, তাদের বাড়ি ঝালকাঠির কাঠালিয়ায়। গ্রামের বাড়িতেই তার ভাইকে জানাজা শেষে কবর দেয়া হয়েছে।

সূত্র: যুগান্তর

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -