17 C
Dhaka
Thursday, January 21, 2021

ইউরোপে কোরআন অবমাননায় নিন্দা জানিয়েছেন আল্লামা ক্বাসেমী

- Advertisement -
- Advertisement -

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র মহাসচিব, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর নায়বে আমীর, দেশের শীর্ষ আলেম, আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী সুইডেন ও ডেনমার্কে ইসলামবিদ্বেষী উগ্রপন্থী গোষ্ঠী কর্তৃক মহাগ্রন্থ পবিত্র কুরআন অবমাননার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, পশ্চিমের দেশগুলোতে পরিকল্পিতভাবেই এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা কিছুদিন পর পর ঘটানো হয়ে থাকে। এতে তাদের একটাই উদ্দেশ্য, তারা যেকোনোভাবে শান্তিপ্রিয় মুসলমানদেরকে বিক্ষুব্ধ করে তুলে চরমপন্থার দিকে ঠেলে দিতে চায়। যাতে করে মুসলমানদের উপর হামলে পড়ার জন্য, তাদেরকে দাবিয়ে রাখতে অজুহাত দাঁড় করানো যায়। আল্লামা কাসেমী বলেন, এটা অত্যন্ত জঘন্য ও নোংরা অপকৌশল। আমি বুঝতে পারি না, তারা কি করে নিজেদেরকে সভ্য বলে দাবি করে। তারা নিজেদের সভ্য বলে দাবি করা ভ-ামি ছাড়া কিছু নয়। অথচ কোনো ধর্ম ও ধর্মগ্রন্থ নিয়ে এমন বর্বরতা আইয়্যামে জাহিলিয়্যাতেও ছিল না।

জমিয়ত মহাসচিব বলেন, ইসলাম ও মুসলমানের সৌন্দর্য এখানে যে, তারা কখনো কোনো আসমানি কিতাবের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করেন না। কারণ, মুসলিমরা আল্লাহ তাআলার সমস্ত কিতাব ও সকল পয়গম্বরগণের উপর বিশ্বাস ও শ্রদ্ধাবোধ বজায় রেখে চলেন। তাছাড়া প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে অন্য কোন ধর্মগ্রন্থ ও ধর্মীয় স্থান নিয়ে এমন বর্বর কা-ে জড়িত থাকার নজির মুসলমানদের ক্ষেত্রে নেই। পবিত্র কোরআনে আগুন দেয়ার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সুইডিশ সরকারের পদক্ষেপকে লোকদেখানো আখ্যায়িত করে আল্লামা কাসেমী বলেন, দেশটির সরকার এই বর্বরতারোধে আন্তরিক হলে এটা সংঘটন কখনোই সম্ভব হতো না।

তিনি ইউরোপকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নিশ্চিতে উগ্রবাদি ডানপন্থীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মুসলমান জনসাধারণের মৌলিক অধিকার, মর্যাদাবোধ ও নিরাপত্তার বিরুদ্ধে অব্যাহত হুমকি সৃষ্টিকে প্রশ্রয় দিয়ে ইউরোপের সভ্য বলে দাবি করা ভ-ামি ছাড়া কিছু নয়। বর্তমানে ইন্টারনেটনির্ভর সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যাপক ব্যবহার ও অবাধ তথ্যপ্রবাহের যুগে কারো কোনো অপকীর্তিই গোপন রাখা সম্ভব নয়। আমরা আশা করি, অন্তত নিজেদের সভ্যতার মুখোশ খসে পড়া রোধে ইউরোপের বোধোদয় হবে এবং প্রকৃত সভ্যদের মতো আচরণে মনোযোগী হবে। জমিয়ত মহাসচিব মুসলমানদের প্রতি সর্বোচ্চ ধৈর্য ধারণ, শান্তিপূর্ণ অবস্থান বজায় রেখে চলা এবং শত্রুদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে কোনোরূপ সহিংসতায় না জড়াতে আহ্বান জানান।

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -