28 C
Dhaka
Saturday, March 6, 2021

অমানবিকতাই করোনাভাইরাসের ভয়াবহতাকে আরো তীব্র করে তুলবেঃমাও.বাহাউদ্দীন যাকারিয়া

- Advertisement -
- Advertisement -

চলমান২৪ঃ করোনাভাইরাসের প্রকোপ গোটা বিশ্ব ব্যাপী। এটি একটি বৈশ্বিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। প্রায় ২২০টি দেশ করোনায় আক্রান্ত। পরাশক্তিধর কিংবা দুর্বল কোনো দেশই এ থেকে মুক্ত নয়।

কিন্তু আমাদের দেশে এ কারণে এমন কিছু ঘটনা ঘটে চলেছে যা কেবল অমানবিকই নয়; শুনতেই গা শিহরিয়ে উঠে।

কেউ করোনায় আক্রান্ত হলে তার এবং তার পরিবারের সদস্যদের সাথে যে আচরণ করা হয় তা সত্যিই দুঃখজনক। এমনকি আক্রান্তহীন সদস্যদেরও একধরনের সামাজিক বয়কট করা হয়। যে বাসায় বা মহল্লায় তার বসবাস সেখান থেকে বিতাড়িত করা হয়। কেউ এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে তো কোনো কথাই নেই। কাফন-দাফন,জানাযা জটিল ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। কোথাও কোথাও ভয়ে লাশ সড়কে, জঙ্গলে ফেলে দেয়ার কথাও শুনা যায়। কোথাও লাশ সামনে নিয়ে বিলাপ করতে দেখা যায়। থানা, পুলিশ, সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থায় যোগাযোগ করেও কোনো ধরনের সাড়া পাওয়া যায় না। সরকার করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কে সতর্ক করতে কতই তৎপরতা দেখায়। কিন্তু আক্রান্ত হয়ে যারা মারা যায় তাদের কাফন-দাফনের কার্যকর ব্যবস্থা নিতে কোনো পদক্ষেপ নিয়েছে বলে শুনা যায় না।

এক্ষেত্রে কিছু স্বেচ্ছাসেবি কওমী উলামায়ে কেরাম এগিয়ে না আসলে কি যে অবস্থা হতো তা কি কেউ ভেবে দেখেছেন? মিরপুরে পাইপাড়ায় করোনায় আক্রান্ত এক ব্যক্তি তার মায়ের লাশ নিয়ে ১৪ঘন্টা অপেক্ষা করেছেন। থানাসহ বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করে কোনো সহযোগিতা পাননি। তিনি নিজেও কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেননি। তার আত্মীয়-স্বজনরাও এগিয়ে আসেননি। অবশেষে কওমীদের মারকাজুল ইসলামীই এসে কাফন-দাফনের ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

আমাদের দেশে বহু এনজিও রয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সেবায় তাদের কোনো তৎপরতা দেখা যায় না। তাদের কাজ কী? মানুষের জীবন বাঁচার লড়াইয়ের সময় তারা তৎপরতাহীন কেন?

বিপদাপদে সহানুভূতিশীল হওয়া অন্যতম মানবীয় বৈশিষ্ট্য। যত বেশি অমানবিকতার প্রকাশ ঘটবে ততো বেশি করোনা তীব্রতর হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই আমরা যতো বেশি মানবিক হবো, ততো দ্রুত আল্লাহ আমাদের প্রতি দয়াবান হবেন।

লেখক: কেন্দ্রীয় জমিয়তের যুগ্ম মহাসচিব ও জামেয়া আরজাবাদ ঢাকার প্রিন্সিপাল।

- Advertisement -

Latest news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...
- Advertisement -

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...

Related news

হতাশ হয়ে পাকিস্তানে ফেরত যাচ্ছেন নাগরিকত্বের আশায় ভারতে আসা হিন্দু ও শিখরা!

আশাহত হয়ে পাকিস্তান ফিরে যাচ্ছেন মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার আশায় পাকিস্তান থেকে আসা হিন্দু ও শিখ শরণার্থীরা। করোনার কারণে আর্থিক ক্ষয়ক্ষতি ও...

যে গাছগুলোতে রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

যেসব গাছের এক বা একাধিক অংশ প্রাণীদের ক্ষেত্রে দরকারি ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাকে ঔষধি গাছ বলে। গাছ যদি হয় বিভিন্ন রোগের ওষুধ, তখন...

হাজার কোটি টাকা দিলেও আর হিজাব ছাড়ব না : হালিমা ইডেন

ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে আপস করার জন্য চাপ অনুভব করার প্রেক্ষাপটে মুসলিম মডেল হালিমা ইডেন ফ্যাশন শো থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। বুধবার ২৩ বছর...

ধর্ষকদের শাস্তি পুরুষাঙ্গ অকেজো, ইমরান খানের অনুমোদন!

ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড এবং রাসায়ানিক প্রয়োগের মাধ্যমে ধর্ষকের পুরুষাঙ্গ অকেজো (খোজাকরণ) করে দেয়ার বিধান রেখে দুটি অধ্যাদেশ অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিপরিষদ। মঙ্গলবার...
- Advertisement -